SSC Club 94 BD

বিসমিল্লাহির রাহমানির রহিম

সূচনাঃ  বন্ধুরা শুভেচ্ছা ও ভালবাসা নিও।

১৯৯৪ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ কারী বাংলাদেশের সকল জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বন্ধুদের  একটি অনলাইন প্লাটফর্মে একত্রিত করিবার লক্ষ্যে ১৯ শে জানুয়ারী ২০২০ ইংরেজি তারিখে কিছু বন্ধুরা মিলে আলোচনা ও মতামতের ভিত্তিতে    SSC CLUB 94 BD নামের ফেইসবুক গ্রুপটি তৈরি করি, অত্যন্ত ইতিবাচক মনোভাব ও সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা নিয়ে এটি এগিয়ে চলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে। এর চলার পথের সঙ্গী তুমি- আমি-আমরা সবাই।

SSC CLUB 94 BD একটি অরাজনৈতিক, অসাম্প্রদায়িক ও অলাভজনক স্চ্ছোসেবী সংগঠন যা বাংলাদেশ সরকারের সাংগঠনিক প্রচলিত আইনে চলিতে বাধ্য থাকিবে এবং কখনো রাষ্ট্র বিরোধী কোন কাজে লিপ্ত হইবে না বরং দুর্যোগপূর্ণ মূহুর্তে সরকারের সহযোগি হিসেবে সাধ্যমত সহযোগিতায় সচেষ্ট থাকিবে,  ইনশাআল্লাহ।

94 এর সংখ্যা ও তথ্য: ১৯৯৪ সকল স্কুল থেকে এসএসসি পরীক্ষায় ৬৮৫৮৩১ জন, দাখিল পরীক্ষায়-৫৯৮০৫ জন এবং কারিগরি পরীক্ষায়- ২৭২৪৭ জন, সর্বমোট- ৭৭২৮৮৩ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করেছিল।

বন্ধুদের সাথে আড্ডা আর ভালবাসার ছলে পরিচিতি, গল্প, সুখ- দুঃখ ভাগাভাগি  কে আরো বেশি প্রাণবন্ত ও গতিশীল করিতে আমরা আয়োজন করি ২৫ বৎসর উপলক্ষে রজত জয়ন্তী ও উৎসব , স্থান: পূর্বাচল সিটি ঢাকা, তারিখ: ৩১ শে জানুয়ারী ২০২০। অল্প সময়ের আয়োজন কে সফল ও প্রাণবন্ত করে তুলেছে বন্ধুদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে।

সময়ের সাথে সাথে আমাদের এই গ্রুপটিতে  সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে, গ্রুপের সকল সদস্যের সকল কর্মকান্ড ও আচরণ কে কিছু নিয়মকানুন এর ভিতরে চলার উদ্দেশ্য গ্রুপের জন্য একটি গঠনতন্ত্র ও নীতিমালা প্রয়োজন এবং  উপস্থিত বন্ধুদের আলোচনা পর্যালোচনা ও পরামর্শক্রমে আমরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হই যে, আমাদের এই ফেইসবুক গ্রুপটিকে শুধু অনলাইনে সীমাবদ্ধ না রেখে বাস্তব জীবনের কল্যাণকর ভূমিকায় আনয়ন কল্পে ২৯ ফেব্রুয়ারী 2020 আমরা মিলিত হই ঢাকার প্রাণ কেন্দ্র রমনা পার্ক রেস্তরাঁয়, উপস্থিত বন্ধুদের মুক্ত আলোচনা ও পর্যালোচনায়  “ SSC CLUB 94 BD” কে একটি সরকারের  সাংগঠনিক প্রচলিত আইনে নিবন্ধিত সংগঠনের রূপ রেখা নির্ধারণ ও পরিচালনার লক্ষ্যে একটি অস্থায়ী ২ সদস্য বিশিষ্ট  সমন্য়কারী, ১৫ সদস্য বিশিষ্ট সহযোগি সমন্য়কারী,  ১০ সদস্য বিশিষ্ট গ্রুপ ওয়াচ কমিটি ও ৬ সদস্য বিশিষ্ট গ্রুপ এডমিন প্যানেল গঠন করা হয় যা প্রয়োজনে পরিবর্তন ও পরিবর্ধনশীল। এই অস্থায়ী কমিটির মেয়াদ কাল সর্বোচ্চ ১ বছর, মেয়াদ উত্তীর্ণের পূর্বে আলোচনা ও মতামতের ভিত্তিতে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা ও দায়িত্ব পালনে সহায়তা প্রদান করা।

নিম্নে দায়িত্ব প্রাপ্ত বন্ধুদের নামের তালিকা

প্রধান সমন্য়য়কারী

১। তাবির হোসেন পাভেল
২। রূপম রহমান

এডমিন পেনেল

১। ইসমাইল হোসেন ( IT)
২। গোলাম কিবরিয়া 
৩। ইসমাইল হোসেন (সাজু)
৪। মাসুদ শরিফ 
৫। মোবারক হোসেন ফালু
৬। ইশরাত জাহান

সহযোগী সমন্য়য়কারী

১। ব্যারিস্টার জয়নাল আবেদীন আলাল
২। সৈয়দ ফকরুল ইসলাম মামুন
৩। ইসমাইল হোসেন (IT)
৪।ইন্সপেক্টর শাহরে আলম
৫। ইসমাইল হোসেন (সাজু)
৬। মাসুদ শরিফ
৭। শামীমা আক্তার
৮।  মোহাম্মদ দ্বীন ইসলাম
৯।  ইকবাল কবির লেমন।
১০। জাহাঙ্গীর আলম
১১। মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন (খোকন )
১২। আই বি এম সোহাগ

১৩। ইরফান খান

গ্রুপ ওয়াচ কমিটি

১ । রফিকুল ইসলাম (নবাবগঞ্জ)
২। আন্নান উল হক তারা( উত্তরখাঁন)
৩। মোহাম্মদ সেলিম(মহাখালী)
৪। মিরন খাঁন (রামপুরা)
৫। এস এম রেজাউল – মগবাজার
৬। জাহাঙ্গীর আলম
৭। শামীমা আক্তার

৮। খালেদা মুক্তা
9। খোরশেদ আলম

পরবর্তীতে প্রস্তাব ও আলোচনার ভিত্তিতে মডারেটর

১। মাসুম কিরণ

২। ইকবাল কবির লেমন

৩। কামরুল সুমন

৪। সেলিম হোসেন

৫। দিলরুবা দিলা

লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য:

১। ক) সদস্য সংগ্রহ ও তালিকা করণ: 

১৯৯৪ ইংরেজী বর্ষে এস এস সি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী জীবিত আছেন এমন সকল বন্ধুদের বাংলাদেশ ও প্রবাসে অবস্থান করছে  এমন সকল বন্ধুদের একটি প্লাটফর্মে নিয়ে এসে বন্ধুত্বের এক মহামিলন অনুষ্ঠিত করাই আমাদের অন্যতম উদ্দেশ্য এবং সকল বন্ধুদের একটি তথ্য ভিত্তিক সর্বোচ্চ সংখ্যক বন্ধু তালিকা তৈরি করন ও ওয়েব সাইটে বিভাগ জেলা ও থানা ভিত্তিক লিপিবদ্ধ করে রাখা ।

    খ) তালিকাকৃত বন্ধুদের সাংগঠনিক বিচার বিশ্লেশন এর ভিত্তিতে ৬ টি ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করা হবে যথাক্রমে:

১। ফাউন্ডার মেম্বার বা উদ্যোগতা সদস্যঃ 

      যে সকল বন্ধুরা এই গ্রুপ তৈরির উদ্যোগ ও শ্রম দিয়েছে তাদের কে ফাউন্ডার মেম্বার বা উদ্যোগতা সদস্য হিসেবে লিপিবদ্ধ থাকিবে ।

২। সাধারণ সদস্যঃ প্রথমে সবাই সাধারণ সদস্য পদ লাভ করিবে এবং সাংগঠনিক সকল কার্যক্রম এর উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে তাহার সদস্য পদ উন্নীত করা হবে।

৩। দাতা সদস্যঃ

ক) ৯৪ এর যে কোনো বন্ধু সাংগঠনিক কার্যক্রম কে সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা কে বাস্তবায়নের জন্য বড় অংকের অনুদান দিয়ে দাতা সদস্য লাভ করিতে পারিবে ।

খ) ৯৪ এর বন্ধু নয় এমন দেশী/বিদেশি, ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠান/সংস্থা অনুদান দিয়ে দাতা সদস্য লাভ করিতে পারিবে তবে এ ক্ষেত্রে বহিঃ দাতা সদস্য হিসেবে আইডি কার্ড দেয়া হবে কিন্তু কোন প্রকার ভোটে অংশগ্রহণ ও ভোট প্রদানের সুযোগ থাকিবে না।

৪। আজীবন সম্মাননা সদস্যঃ যে সকল বন্ধুরা অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও সাংগঠনিক কার্যক্রমে নিজের সক্রিয় ভূমিকা পালন এবং আস্থা অর্জন করিবে এবং অর্থনৈতিক সহযোগিতায় বড় অংকের সহযোগিতা করিবে  ঐ সকল বন্ধুদের আলোচনার ভিত্তিতে আজীবন সম্মাননা সদস্য হিসেবে গন্য হবে।

৫। সম্মানিত বন্ধু সদস্যঃ  ৯৪ এর যে সকল বন্ধুরা সরকারের উচ্চ পদস্থ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে  এবং  ১ম শ্রেনীর সকল কর্মকর্তা তাদের কে সম্মানিত সদস্য হিসেবে বিবেচিত  হবে।

৬। জেনারেশন বা প্রজন্ম সদস্যঃ ৯৪ বন্ধুদের ছেলে মেয়ে যদি ২০ বছর পূর্ণ হয় প্রয়োজনীয় সকল তথ্য প্রমাণ দিয়ে জেনারেশন সদস্য পদ লাভ করিতে পারিবে। যা উক্ত সংগঠনের ভবিষ্যত পথ প্রদর্শক হিসেবে গন্য হবে।

২। কেন্দ্রীয় ও জেলা অফিস গঠনঃ

ক) ঢাকায় একটি কেন্দ্রীয় অফিস থাকিবে যা ৬৪ জেলার আঞ্চলিক অফিসের তথ্যের ভিত্তিতে অনুসন্ধান পূর্বক সমন্বয় ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। যা কমিটির বন্ধুদের মতামতের ভিত্তিতে স্থান নির্ধারণ ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

খ) আঞ্চলিক অফিস: জেলা ও থানার নির্বাচিত বন্ধুরা আঞ্চলিক অফিসের  স্থান নির্ধারণ করবে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করিবে এবং  যে কোন তথ্য সঠিক ভাবে সংগ্রহ করিবে ও স্থানীয় সকল বন্ধুদের সাথে যোগাযোগের মাধ্যমে সুসম্পর্ক স্থাপন এবং প্রয়োজনীয় সকল কর্মকাণ্ডে অগ্রণী ভূমিকা পালনে সেচ্ছায় সক্রিয় থাকিবে।

৩। ব্লাড ব্যাংক গঠনঃ ৯৪ এর সকল বন্ধুদের ডাটা বেইজে প্রয়োজনীয় তথ্যে অবশ্যই রক্তের গ্রুপ ও সক্রিয় মোবাইল নাম্বার উল্ল্যখ থাকিবে যা ওয়েব সাইটে দৃশ্যমান হয় এবং ৯৪ এর যে কোনো বন্ধুর রক্তের প্রয়োজনে ম্যাচকৃত রক্ত অন্য বন্ধু রক্ত দানে উৎসাহীত থাকিবে।

৪। মানবতার দেয়াল তৈরি করাঃ  ৯৪ বন্ধুদের অব্যবহৃত পোষাক দিয়ে বাংলাদেশের প্রতিটি এলাকায় একটি করে মানবতার দেয়াল তৈরি করা হবে  যা সমাজের নিরীহ মানুষ গুলো এই মানবতার দেয়াল থেকে পছন্দ ও সাইজ অনুসারে ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য পোষাক গ্রহন করিতে পারিবে যা সমাজ সেবায় এক ধাপ এগিয়ে এস এস সি ৯৪ বিডি।

৫। ৯৪ এর বন্ধুদের জন্য কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করাঃ ক) ৯৪ এর যে সকল বন্ধুরা সেচ্ছায় মাসিক হারে সর্ব নিম্ন ২০০ টাকা হতে শুরু করে নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী সর্বোচ্চ —টাকা  চাঁদা প্রদান করিতে পারিবে বিশেষ করে কমিটিতে যারা  থাকিবে তারা বাধ্যতামূলক নির্ধারিত চাঁদা প্রদান করিতে হইবে এবং  দাতা সদস্য/ দেশী/বিদেশি সংস্থা হতে প্রাপ্ত অনুদান/চাঁদা একটি অর্থ উপকমিটি গঠনের মাধ্যমে ৩ জন স্বাক্ষরিত ব্যাংক একাউন্টে জমা থাকিবে যা পরিচালনা কমিটির সিদ্ধান্তে বন্ধুদের কল্যাণে ও বিশেষ প্রয়োজনীয় খাতে ব্যয় করা হবে। অর্থ উপকমিটি বাৎসরিক আয় ব্যয়ের হিসাব সকল বন্ধুদের অবশ্যই অবহিত করা হবে। ওয়েব সাইট ও গ্রুপ পেজের মাধ্যমে।

খ) পিছিয়ে পড়া বন্ধুদের জন্য কর্মসংস্থান এর ব্যবস্থা এর ব্যবস্থা করা বিশেষ করে এক বন্ধু অন্য বন্ধুকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সাধ্যমত সহযোগিতা করা এবং বিশেষ চিকিৎসা ব্যয় ও আর্থিক সংকটের সময় সম্মিলিত ভাবে বন্ধুর পাশে দাঁড়ানো।

৬। শিক্ষা বৃত্তি ও শিক্ষা উপকরণঃ ৯৪ বন্ধুদের ছেলে মেয়ে যদি ৮ম, এসএসসি ও এইচএসসি সমমানের বোর্ড পরীক্ষায় মেধা তালিকায় স্থান করে নিয়েছে তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য প্রমাণ এর ভিত্তিতে বাৎসরিক শিক্ষা বৃত্তি ও অসচ্ছল বন্ধুদের ছেলে মেয়ের পড়ালেখার খরচ চালাতে অক্ষম সে সকল ছেলে মেয়েদের  জন্য বাৎসরিক শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করা হবে। তবে অবশ্যই সকল তথ্য প্রমাণ যাচাই করা হবে সেক্ষেত্রে লজ্জা বা আপত্তি করা যাবে না।

৭। মেম্বারশিপ কার্ড তৈরী করন ও বিতরণঃ প্রত্যেক বন্ধুদের ক্যাটাগরি অনুসারে  মেম্বারশিপ কার্ড তৈরী করন ও বিতরণ করা হবে যা ঐ কার্ডের মাধ্যমে তার পরিচিতি বহন করিবে যে আমরা এস এস সি ক্লাব ৯৪ বিডি এর গর্বিত সদস্য ।

৮। বার্ষিক মিলন মেলা/ উৎসবঃ প্রিয় বন্ধুদের সাথে আলোচনা ও পর্যালোচনা করে মতামতের ভিত্তিতে দিন ক্ষন ও স্থান নির্ধারণ করে প্রতি বছরে একটি বারের জন্য প্রাণের বন্ধুদের জন্য মহামিলনের আয়োজন করা ও স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণে ভালবাসার বন্ধন সুনিশ্চিত করা হবে ইনশাআল্লাহ।

৯। ৯৪ কমিউনিটি ক্লিনিক/হসপিটাল তৈরি করাঃ ৯৪ বন্ধুদের স্বাস্থ্য সেবা সুনিশ্চিত করিতে প্রথমে ঢাকায় এবং পর্যায়ক্রমে বিভাগ ও জেলা শহরে স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের নিমিত্ত্বে কমিউনিটি ক্লিনিক/হসপিটাল তৈরি করা হবে, যেখানে আমাদের ৯৪ এর ডাক্তার বন্ধু সহ স্চ্ছোসেবী ডাক্তার গন ফ্রি তে চিকিৎসা সেবা প্রদান করিবে এবং সরকারি নির্ধারিত ফি দিয়ে প্রাথমিক ও জরুরী পরীক্ষা নিরীক্ষা করিতে পারিবে, এটা হবে ৯৪ বন্ধুদের জন্য যুগান্তকারী মাইল ফলক।

গ্রুপের সকল সদস্যের জন্য অত্যাবশ্যকীয় পালনীয় বিষয় সমূহঃ

১। ১৯৯৪ সালের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ কারী ব্যতীত কেউ এ গ্রুপে সদস্য হতে পারবে না ।

২। কোন সদস্য যদি গ্রুপের নিয়ম বহির্ভূত কাজ করে অথবা এডমিন প্যানেলের সদস্য বা সাধারণ সদস্যদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে সেক্ষেত্রে উক্ত সদস্য কে কমিটির বেঁধে দেয়া নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সন্তোষজনক জবাব না দিলে তাহার সদস্য পদ বাতিল বলে গণ্য হবে।

৩। কোন ধরনের ব্যক্তিগত বা সমষ্টিগত ব্যবসায়িক স্বার্থে তৈরি প্রমোশনাল পোস্ট গ্রুপে দেয়া যাবে না।

৪। গ্রুপে সব ধরনের ধর্মীয় ও রাজনৈতিক সভা সমাবেশ নিয়ে আলোচনা বা পোস্ট দেওয়া নিষিদ্ধ।

৫। কপি পেষ্ট বা একই পোস্ট একাধিক জনে বা একই জনে একাধিক বার না করার জন্য অনুরোধ করা হলো। যদি ICT  আইনে দণ্ডায়মান হলে এই ক্ষেত্রে গ্রুপ কতৃপক্ষ দায়ী থাকিবে না।

৬। গ্রুপে কোন পোস্ট মতের অমিলের জন্য এক সদস্য আরেক সদস্য কে ব্যক্তিগত আক্রমণ করতে পারবে না, কাউকে আপত্তিকর/অসম্মান করে কিছু লেখা বা বলা যাবে না। কোন রকম অভিযোগ থাকলে ইনবক্স করে জানানোর অনুরোধ করা হলো অথবা এডমিন প্যানেলে অভিযোগ করার অনুরোধ করা হলো।

৭। কোন ফেইক একাউন্ট, ছদ্ম নামের একাউন্ট, বিজ্ঞাপনধর্মী একাউন্ট,আজগুবি নামের একাউন্ট ধারী সদস্য হতে পারবে না অথবা হলেও সংশোধন না হলে উক্ত সদস্য পদ বাতিল করা হবে।

৮। গ্রুপে পোষ্টের মাধ্যমে অথবা কমেন্টে ব্যক্তিগত ফোন নম্বর, ঠিকানা, পারিবারিক তথ্য, ছবি দেওয়ার ফলে কোন ধরণের সমস্যা সৃষ্টি হলে গ্রুপ কতৃপক্ষ দায়ী থাকিবে না।

৯। ধর্মীয় ও রাজনৈতিক উগ্রবাদী, রাষ্ট্র বিরোধী কাজ, আর্থিক প্রতারণা, সেক্সুয়াল হেরাসমেন্ট বা অন্য কোন ধরনের অপরাধের সাথে জড়িত প্রমাণিত হলে তাহার সকল সদস্য পদ বাতিল বলে গণ্য হবে।

এডমিন ও মডেরেটর নির্বাচন এবং দায়িত্ব

১। যোগ্যতাঃ  ”SSC CLUB 94 BD” উক্ত সংগঠনটি কে প্রচার ও প্রসারিত করিবার  লক্ষ্যে ফেইসবুকে সক্রিয় বন্ধুদের মধ্য থেকে ভাষা জ্ঞান, দক্ষ ও বন্ধুসুলভ সুন্দর মনের অধিকারী যোগ্যতা সম্পন্ন  বন্ধুদের কে পরিচালনা কমিটির বন্ধুরা নির্বাচন ও দায়িত্ব প্রদান করিবে যা গ্রুপের কিছু রুলস বা নিয়মের মধ্যে এপ্রোভ করিবে, নিয়ম বহির্ভূত হলে ডিক্লাইন করিবে এমন কি এপ্রোভ কৃত পোস্ট বিতর্কের কারণ হলেও পোস্ট রিমুভ বা ডিলিট করিতে পারিবে।

২। এডমিন ও মডেরেটর সংখ্যা নির্ধারণঃ গ্রুপের কার্যক্রম গতিশীল রাখতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক এডমিন ও মডেরেটর হিসেবে পরিচালনা কমিটির আলোচনা ও মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

৩। এডমিন ও মডেরেটর বন্ধুগন সব ধরনের পোস্ট অনুমোদন করার আগে যাচাই বাছাই করে অনুমোদন বা বাতিল করিবে , ধর্মীয় উগ্রপন্থী, রাজনৈতিক গোঁড়ামি, সমাজের স্বাভাবিক পরিবেশ বিনষ্টকারী কোন ধরনের পোস্ট অনুমোদন করার যাবে না।

৪। এডমিন ও মডেরেটর বন্ধুরা গ্রুপের স্বার্থে সকল কার্যক্রম স্বাধীনতার সহিত পরিকল্পনা ও পরিচালনা করিবে এই ক্ষেত্রে কমিটির অন্য কেউ হস্তক্ষেপ করতে পারবে না তবে জটিলতা দেখা দিলে পরিচালনা কমিটির পরামর্শ ও সহযোগিতা গ্রহণ করা হবে।

৬। এডমিন ও মডেরেটরগন গ্রুপে নিঃস্বার্থভাবে দায়িত্ব পালন করবে। দায়িত্ব পালনের জন্য কোনো প্রকার  অর্থসাহায্য বা ব্যক্তিগত স্বার্থ সংশ্লিষ্ট কোন কিছু দাবী করিতে পারিবে না।

৭। এডমিন ও মডেরেটর বন্ধুগন একক সিদ্ধান্তে কোন প্রকার আর্থিক সহায়তা চেয়ে গ্রুপের মধ্যে পোস্ট দিতে পরিবে না। কোন সদস্য যদি এ ধরণের পোস্ট দেয় সে ক্ষেত্রে এপ্রোভ করা যাবে না।

৮। গ্রুপের পাসওয়ার্ডঃ পরিচালনা কমিটির আলোচনা ও মতামতের ভিত্তিতে গ্রুপের পাসওয়ার্ড ৩-৫ জনের কাছে থাকিবে।

৯। এডমিন ও মডেরেটর বন্ধুরাও পরিচালনা কমিটির মিটিং এ সংগঠনের নীতি নির্ধারণের সকল বিষয় মতামত প্রকাশ ও ভোট প্রদানের অংশগ্রহণ করিতে পারিবে, যদি একাধিক পদে একই ব্যক্তি বহাল থাকে সে ক্ষেত্রে একটি পদে ভোট প্রদান করিতে পারিবে।

কমিটি গঠন ও প্রক্রিয়াঃ

১। উপদেষ্টা কমিটি গঠন

২। জেলা কমিটি গঠন

৩। কেন্দ্রীয় পরিচালনা কমিটি গঠন।

১। উপদেষ্টা কমিটি গঠনঃ সকল জেলার সক্রিয় বন্ধুদের মতামতের ভিত্তিতে এবং যে সকল বন্ধুরা সেচ্ছায় সংগঠনের স্বার্থে সময় বুদ্ধি পরামর্শ দিয়ে সহযোগিতা করিতে পারিবে ঐ সকল বন্ধুদের মধ্যে থেকে ২৫ সদস্যের একটি উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হবে যদি ২৫ অধিক বন্ধু উপদেষ্টা পদে থাকিতে ইচ্ছা প্রকাশ করে সে ক্ষেত্রে ভোটের মাধ্যমে নির্ধারিত করা হবে তবে একই এলাকার/জেলার ১ জনের অধিক হইতে পারিবেনা।

২। জেলা কমিটি গঠনঃ থানা ও জেলা পর্যায়ে যে সকল বন্ধুরা গ্রুপ ও সংগঠনের পরিকল্পিত কার্যক্রমে সক্রিয় ভূমিকা পালন ও বন্ধু সুলভ আচরণ এবং স্বেচ্ছা শ্রমের মাধ্যমে বন্ধুদের জন্য কাজ করিতে ইচ্ছা প্রকাশ বা অংশগ্রহণ করিতে আগ্রহী ঐ এলাকার বন্ধুদের মতামত ও একটিভিটিজ এর উপর ভিত্তি করে ২৫ জন প্রতিনিধি বন্ধু কে দায়িত্ব প্রদান করা হবে। ২৫ এর অধিক বন্ধু কাজ করিতে ইচ্ছা প্রকাশ করিলে সে ক্ষেত্রে ভোটের মাধ্যমে নির্ধারণ করার  হবে ।

তবে একই এলাকার ১ জনের অধিক হইতে পারিবে না।

৩। কেন্দ্রীয় বা পরিচালনা কমিটি গঠনঃ ৯৪ এর যে সকল বন্ধুরা  ঢাকা শহরে স্থায়ী বসবাসরত বা চাকরি, ব্যবসায়িক কারনে  অস্থায়ী বসবাস করে ঐ সকল বন্ধুদের মধ্যে থেকে ফেইসবুক গ্রুপে ও সাংগঠনিক কার্যক্রমে সক্রিয় ও অগ্রণী ভূমিকা পালনে সেচ্ছাশ্রমে আগ্রহী ধৈর্য্য, মেধা, ও সৌহার্দপূর্ন আচরণের অধিকারী বন্ধুদের কে গ্রুপের অন্য সক্রিয় বন্ধুদের মতামতের ভিত্তিতে একটি ২৫ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় বা পরিচালনা কমিটি গঠন করা হবে । যদি ২৫ অধিক বন্ধু দায়িত্ব নিতে আগ্রহী বা ইচ্ছা প্রকাশ করে অতিত একটিভিটিজ পর্যালোচনা সহ ভোটের মাধ্যমে প্রতিনিধি বন্ধু নির্বাচন করা হবে।

সকল কমিটির মেয়াদ ২ বৎসর হিসেবে নির্ধারণ করা হবে তবে প্রথম পরিচালনা কমিটির মেয়াদ কাল সর্বোচ্চ ৩ বছর ধার্য্য হলো এবং মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার ৬০ দিন পূর্বে সমস্ত হিসাব নিকাশ ও প্রস্তুতি সম্পন্ন করে যথা সময়ে নির্বাচনের পল নতুন কমিটির হাতে দায়িত্ব  হস্তান্তর করিবে।

একজন বন্ধু যত ভালো দায়িত্ব পালন করে থাকুক সে পরপর ২ মেয়াদের বেশি প্রতিনিধিত্ব করিতে পারিবে না তবে তৃতীয় মেয়াদের পর পুনরায় নির্বাচনে অংশ নিতে পারিবে । গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সংগঠনটি পরিচালিত হবে এবং এই গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকবে।

যবনিকাঃ SSC CLUB 94 BD এর সকল বন্ধুদের ভালবাসা, বিশ্বাস ও আস্থার সংগঠন হিসেবে বাংলাদেশ ও বর্হিবিশ্বে সুনামের সহিত পরিচিত লাভ করিতে এবং আমাদের এই সংগঠনের  সকল লক্ষ্য, উদ্দেশ্য ও কার্যক্রম সুন্দর ও সুষ্ঠু ভাবে পরিচালনার জন্য ৯৪ এর সকল বন্ধুদের আন্তরিক সহযোগিতা একান্ত কাম্য।

৯৪ এর সকল বন্ধুদের সুস্বাস্থ্য, মঙ্গল ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

পরিশেষে সবাই বলি –

                    “বন্ধুরা হাতে হাত মিলাই,

                    বিপদে বন্ধুর পাশে দাঁড়াই”

প্রস্তাবিত গঠনতন্ত্র/নীতিমালা রচয়িতা

ফাউন্ডার মেম্বার বা উদ্যোক্তা সদস্যবৃন্দ।